লকডাউনে বাড়িতে স্ত্রী’র সঙ্গে খেলতে গিয়ে শিক্ষকের মৃত্যু !

প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণে বিপর্যস্ত বিশ্বের প্রায় প্রতিটি দেশ। করোনার সংক্রমণ মোকাবিলায় লকডাউনের জেরে গৃহবন্দি মানুষ। আর সারা দিন ধরে ঘরে বন্দি অবস্থায় সময় কাটানোর জন্য সব মানুষই বিভিন্ন কাজে নিজেকে ব্যস্ত রেখেছেন। কেউ গল্পের বই পড়ছেন, কেউ অনলাইনে গেম খেলছেন, কেউ আবার সিনেমা দেখে সময় কাটাচ্ছেন।

তেমনই একজন ভারতের বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরের শালবাগান এলাকার বাসিন্দা দুলাল চন্দ্র দে। লকডাউনের মধ্যে সারা দিন ঘরবন্দি থেকে প্রতি রাতে বাড়ির ছাদে স্ত্রীর সঙ্গে ব্যাডমিন্টন খেলতেন তিনি। আর তাতেই ঘটল বিপত্তি। ছাদে ব্যাডমিন্টন খেলার সময় পা পিছলে পড়ে গিয়ে প্রাণ হারিয়েছেন অবসরপ্রাপ্ত এই শিক্ষক।

জানা গেছে, প্রতিদিনের মতো বৃহস্পতিবার রাতেও ছাদে উঠে স্ত্রীর সঙ্গে ব্যাডমিন্টন খেলছিলেন ৬১ বছরের দুলাল চন্দ্র দে। খেলতে খেলতেই জুতো পিছলে যায় তার। একতলা ছাদ থেকে নীচে পড়ে যান দুলাল। পরে গুরুতর আহতাবস্থায় দুলালকে হাসপাতালে নেওয়ার সময় পথেই তার মৃত্যু হয়।

নিহতের পরিবারের সদস্যরা জানান, খেলাধুলো খুবই ভালোবাসতেন দুলাল। বিষ্ণুপুরের কুশদীপ হাইস্কুলে ক্রীড়া শিক্ষকই ছিলেন তিনি। বছরখানেক আগে অবসর নিয়েছেন। অবসরের পর প্রতিদিন নিয়ম করে সন্ধ্যায় বাড়ির বাইরে ব্যাডমিন্টন খেলতেন দুলাল। তবে লকডাউন ঘোষণার পর থেকে আর বাড়ির বাইরে পা রাখেননি। বাড়ির বাইরে যেতে না পেরে এই ক’দিন বাড়ির ছাদে উঠে স্ত্রী’র সঙ্গেই ব্যাডমিন্টন খেলতেন তিনি।

Be the first to comment

Leave a Reply