পোশাক শিল্পে অশনি সংকেত; ৬০০ কোটি ডলারের অর্ডার বাতিল

করোনা ভাইরাসের নেতিবাচক প্রভাবে এ পর্যন্ত বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্পের প্রায় ৬শ’ কোটি ডলারের অর্ডার বা ক্রয়াদেশ বাতিল করেছে আন্তর্জাতিক ক্রেতারা এবং ব্রান্ড প্রতিষ্ঠানগুলো। বাংলাদেশ গার্মেন্টস শিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ শনিবার পর্যন্ত যে তথ্য দিয়েছে তাতে- আন্তর্জাতিক ক্রেতারা ৩১৩ কোটি ডলারের অর্ডার বাতিল করেছে। এতে ১১২৮টি গার্মেন্টস কারখানার ৯৮ কোটি পিস তৈরি পোশাক এখন আর রপ্তানি করা যাচ্ছে না। আর এর ফলে ক্ষতিগ্রস্ত অর্থাৎ কর্মহীন হয়ে পড়েছেন ২২ লাখের বেশি শ্রমিক। সাথে সাথে নিটওয়্যার শিল্পের মালিকদের সংগঠন বিকেএমইএ বলছে, তাদের ২শ’ কোটি ডলারের অর্ডার ইতিমধ্যে বাতিল হয়ে গেছে। কয়েক লাখ শ্রমিক বেকার হয়ে পড়েছেন।

এদিকে, বাংলাদেশ গার্মেন্টস শিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ সভাপতি রুবানা হক শুক্রবার বস্ত্র ও তৈরি পোশাকখাতের আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সোর্সিং জার্নাল-কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, কোভিডের কারণে অর্ডার বাতিল ও অসমাপ্ত কাজের কারণে বাংলাদেশের গার্মেন্টস খাতের ওপরে পুঞ্জীভুত এবং ক্রমবর্ধনশীল দেনা ও দায়ের পরিমাণ একহাজার কোটি ডলার পর্যন্ত দাঁড়াতে পারে- যা বাংলাদেশের পুরো রপ্তানীর তিন ভাগের এক ভাগ। এটা একটা বড় ধাক্কা আমাদের জন্য।

বিজিএমইএ সভাপতি বলেন, সরকার প্রনোদনা ঘোষণা করেছে বটে, তবে এতে উচ্চ সুদে গার্মেন্টস খাতকে ঋণ দেয়া হচ্ছে- যা আমাদের শোধ করতে হবে। রুবানা হক অর্ডার বাতিল না করার জন্য আন্তর্জাতিক ক্রেতাদের প্রতি পুনরায় আহ্বান জানিয়েছেন। -সূত্র: ডয়েচে ভেলে।

Be the first to comment

Leave a Reply