টেলিযোগাযোগ খাতের ‘কোয়ালিটি অব সার্ভিস’ নীতিমালার অনুমোদন

মোবাইলের ভয়েস কল ও ইন্টারনেটের উচ্চমূল্য, দুর্বল নেটওয়ার্ক কাভারেজ, নেটওয়ার্ক সমস্যা, ভয়েস কলের নিম্নমান, গ্রাহক সেবার অসন্তুষ্টি দূর করবে মানসম্মত সেবা তথা কোয়ালিটি অব সার্ভিস (কিউওএস) নীতিমালা। সম্প্রতি এ নীতিমালার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি এ বিষয়ে পরবর্তী পদক্ষেপ নেবে বলে জানা গেছে।
জানতে চাইলে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘নীতিমালার অনুমোদন দিয়ে দিয়েছি। মন্ত্রণালয়ের কাজ শেষ। এখন এটা বাস্তবায়ন করবে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি।’ তিনি বলেন, ‘কোনও অপারেটর মান অনুযায়ী সেবা দিচ্ছে না, গ্রাহকের অভিযোগ, দাবি— এসব আমলে নিয়ে বিটিআরসি বিষয়টি দেখভাল করবে।’
সংশ্লিষ্টরা বলছেন, নম্বর না বদলে অপারেটর পরিবর্তন তথা এমএনপি সেবা এরই মধ্যে চালু হয়েছে। অপারেটরগুলোকে টিকে থাকতে হলে মানসম্মত সেবা দিয়েই টিকে থাকতে হবে। যে অপারেটরের সেবা বা সেবার মান খারাপ হবে সেই অপারেটর থেকে অন্য অপারেটরে গ্রাহকরা চলে যাবেন। ফলে মোবাইল অপারেটররা তাদের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে নিজেরাই সেবার মান উন্নত করবে।
টেলিযোগাযোগ সেবায় কোয়ালিটি অব সার্ভিসের (কিউওএস) নীতিমালা তৈরি করে বিটিআরসি। এ নীতিমালায় টেলিযোগাযোগ সেবার বিভিন্ন সূচকের মান কী হবে, সেটি পরিষ্কার করা হয়েছে।
কমিশনের একটি কারিগরি পর্যবেক্ষণ দল মান নিশ্চিত করতে না পারলে অপারেটরগুলোকে জরিমানা করতে পারবে কিউওএস নীতিমালা অনুসারে।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, কিউওএস নীতিমালায় বলা হয়েছে, ফোরজি মোবাইল ইন্টারনেটের ন্যূনতম গতি হতে হবে ৭ এমবিপিএস এবং থ্রিজি ইন্টারনেটের গতি হতে হবে ন্যূনতম ২ এমবিপিএস (মেগা বিটস পার সেকেন্ড)। আর টুজি ইন্টারনেটে ডাউনলোডের ন্যূনতম গতি হতে হবে ১৬০ কেবিপিএস (কিলো বিটস পার সেকেন্ড)।
একইভাবে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানের (আইএসপি) জন্যও কিছু নিয়ম তুলে ধরা হয়েছে। অপারেটরগুলোর জন্য বলা হয়েছে, একটি ওয়েবসাইট ডাউনলোড হতে হবে ৭ সেকেন্ডের মধ্যে। অন্যদিকে মোবাইলে কথা বলার (ভয়েস কল) সময় কল ড্রপের হার হতে হবে ২ শতাংশের কম। এর চেয়ে বেশি হলে সংশ্লিষ্ট অপারেটরকে জরিমানা করতে পারবে বিটিআরসি।
মোবাইল অপারেটর ছাড়াও আইএসপি, ওয়াইম্যাক্স, বিটিসিএলের (ল্যান্ডফোন) মতো সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোকেও কিউওএস নীতিমালা মেনে চলতে হবে।

Be the first to comment

Leave a Reply