আওয়ামীলীগ ও বি এন পি তুমুল সংঘর্ষ

শেরপুর জেলার, নকলা উপজেলায়
বি এন পি জোটের হামলায় আহত ১০
আওয়ামীলীগের অফিস ভাংচুর””

বি এন পি জোটের হামলায় নকলা উপজেলা
৭ নং টালকি ইউনিয়নের রামের কান্দি বাজারে ১৪ ই ডিসেম্বর রাত ৭ টায় ব্যাপক সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালিয়ে ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারন সম্পাদক সহ অন্তত ১০ জন্য আওয়ামীলীগ কর্মী আহত।

প্রতক্ষ্যদর্শীদের সুত্রে জানা যায়,বি এন পি জোটের কর্মীরা সন্ধ্যায় নির্বাচনী অফিস উদ্ভোধনের পরপরই বাজারের পশ্চিমপাশে আওয়ামীলীগের দলীয় নির্বাচনী অফিসে শতশত বি এন পি জোটের কর্মীদের নিয়ে অতর্কিত ভাবে হামলা চালিয়ে ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারন সম্পাদক রুবেল সরকার সহ
অন্তত ১০ জন্য গুরুতর রক্তাক্ত জখমি অবস্থায় নকলা উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে।

আহত আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীদের দেখতে নকলা হাসপাতালে শতশত জনতারউপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়।
বি এন পি জোটের হামলায় আহতদের দেখতে গিয়ে নকলা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলাম জিন্নাহ বলেন, বি এন পি অতীতে যেভাবে হামলা করে সন্ত্রাসীর রাজত্ব কায়েম করেছিল,ঠিক একই কায়দায় বর্তমানে আওয়ামীলীগের উপর হামলা চালাচ্ছে,এক কথায় বি এন পি হচ্ছে সন্ত্রাসের দল।

এছাড়াও বি এন পি জোটের কর্মীরা নকলা উপজেলার রামেরকান্দি, জামতলী ও নারায়নখোলায় আওয়ামীলীগের অফিস ভাংচুর সহ বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি সহ আসবাব পত্র চেয়ার টেবিল ভাংচুর করে এসময় আহতের রক্তে রন্জিত বিভিন্ন উপকরন ও মেঝেত রক্তের দাগ লাগতে দেখা যায়।

এ হামলার ঘটনায় পুলিশ ৭ নং টালকি ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও বি এন পির সহ- সভাপতি খোরশেদুর রহমান সহ ৩ জন কে আটক করেছে নকলা উপজেলার সাধারন মানুষের মাঝে আতংক বিরাজ করছে।

Be the first to comment

Leave a Reply