আইয়ুব বাচ্চুর প্রস্থানে বেদনা ছড়ালো অন্তর্জালে

কত শত গানই না দিয়ে গেছেন আইয়ুব বাচ্চু! বাংলাদেশের সংগীত শিল্পে তার মতো ধারাবাহিকভাবে একের পর এক অসাধারণ গান কেইবা উপহার দিতে পেরেছে। তার কাছে কত না ঋণ! প্রজন্ম থেকে প্রজন্মকে গানে গানে অনুপ্রাণিত করে গেছেন তিনি। তার গান ছিল তরুণদের আশ্রয়ের জায়গা।

এই কিংবদন্তির আকস্মিক প্রয়াণে গোটা সাংস্কৃতিক অঙ্গন শোকে মুহ্যমান। আইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, সড়ক যোগাযোগ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন।
সংগীত, মঞ্চ, চলচ্চিত্র আর টেলিভিশন অঙ্গনের শিল্পী-কলাকুশলীরা এই নক্ষত্রের চিরবিদায়ে শোকাহত। গভীর শোক ও সমবেদনা জানিয়েছেন ক্রিকেটাররাও। বিভিন্ন শ্রেণিপেশার গানপাগল সব বয়সী মানুষ তার জন্য শোক প্রকাশ করছেন। এসব শোকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হয়ে উঠেছে আইয়ুব বাচ্চুর জন্য শোকগাঁথা। ব্যান্ড এলআরবি’র আইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যু দেশীয় সংগীতে শূন্যতা তৈরি করবে বলে মন্তব্য প্রায় সবার।
১৯৬২ থেকে ২০১৮— আইয়ুব বাচ্চুর একটি ছবিতে তার জীবনের এই সময়কাল উল্লেখ করে জাতীয় ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিম লিখেছেন, ‘খুব খারাপ একটি সংবাদ শুনে দিন শুরু হলো। তার আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি।’
পেসার রুবেল হোসেন লিখেছেন, ‘সত্যি মানতে পারছি না। ছোটবেলা থেকেই আমি বাচ্চু ভাইয়ের ভক্ত। সেদিনও টিভিতে তার কনসার্ট দেখছিলাম। এটা কী হয়ে গেলো! সবাইকে চলে যেতে হবে একদিন। এটাই বাস্তবতা।’
অভিনেত্রী পূর্ণিমা তার ফেসবুক প্রোফাইল ও কভার পিকচারে দিয়েছেন আইয়ুব বাচ্চুর ছবি। শোক জানাতে আরেক অভিনেত্রী বিদ্যা সিনহা মিম বেছে নিয়েছেন আইয়ুব বাচ্চুর গাওয়া গানের লাইন— ‘মনে রেখো তুমি, কতো রাত কতদিন, শুনিয়েছি গান আমি ক্লান্তিবিহীন।’
আইয়ুব বাচ্চুর সঙ্গে গত ১৬ অক্টোবর রংপুরে কনসার্টের ফাঁকে তোলা একটি সেলফি শেয়ার করেছেন কণ্ঠশিল্পী কণা। তিনি উল্লেখ করেন, ‘বাচ্চু ভাইয়ের সঙ্গে তোলা এটাই শেষ ছবি ছিল পরশু দিন রংপুরে। আপনাকে মিস করবো ভাই। আমরা একজন অভিভাবক হারিয়েছি।’
চিরকুট ব্যান্ডের ফেসবুক পেজে লেখা হয়েছে, ‘আমাদের গানের পাখি, বাংলা ব্যান্ডের কিংবদন্তি আমাদের আইয়ুব বাচ্চু ভাই, এলআরবির আইয়ুব বাচ্চু ভাই, বাংলাদেশের আইয়ুব বাচ্চু ভাই, আমাদের সবার মাথার ছায়া এবি আর নেই! আজ বাংলাদেশের কষ্টের দিন, কাঁদার দিন। আজ পৃথিবীর কষ্টের দিন। সৃষ্টিকর্তা আমাদের ভালোবাসার, আদরের, শ্রদ্ধেয় প্রিয় এই শিল্পীর আত্মার শান্তি দিন।’
চিত্রনায়ক শাকিব খানের ভেরিফায়েড ফ্যান পেজে দেওয়া হয়েছে, ‘ওপারে ভালো থাকবেন বাংলাদেশের ব্যান্ড সংগীতের কিংবদন্তি আইয়ুব বাচ্চু।’ এদিকে গীতিকবি সোমেশ্বর অলি লেখেন নিজের কবিতা থেকে, ‘কবি মরে যায়, কোকিল মরে যায়, পৃথিবী ভরে ওঠে ঝরাপাতায়।’
আইয়ুব বাচ্চুর জনপ্রিয় গান ‘এই রূপালি গিটার ফেলে/ একদিন চলে যাবো দূরে, বহুদূরে’— এই দুই লাইন উল্লেখ করে অভিনেত্রী-নির্মাতা মেহের আফরোজ শাওন লিখেছেন, ‘আইয়ুব বাচ্চু, আমার মতো আরও অনেকের কৈশোর সুরের মায়াজালে বন্দি করে রাখার জন্য আপনাকে ভালোবাসা। ভালো থাকুন আকাশের তারায়।’

আইয়ুব বাচ্চুকে উদ্দেশ্য করে মাইলস ব্যান্ডের শাফিন আহমেদ লিখেছেন, ‘সুরের মূর্ছনায় লাখো হৃদয় ছুঁয়েছেন আপনি। আপনার মৃত্যুতে আমি গভীর শোকাহত।’
ক’দিন আগে মুক্তি প্রতীক্ষিত ‘দেবী’র জন্য শুভকামনা জানিয়েছিলেন আইয়ুব বাচ্চু। সেদিন ছবিটির দুই অভিনেত্রী জয়া আহসান ও শবনম ফারিয়াকে পাশে রেখে শুভেচ্ছা বার্তা দেন তিনি। ‘দেবী-মিসির আলি প্রথমবার’ পেজে ওই ভিডিও শেয়ার করে বলা হয়েছে, “প্রিয় আইয়ুব বাচ্চু, অনেক ধন্যবাদ আপনাকে। আপনার জন্যও ‘দেবী’ চলচ্চিত্র পরিবারের পক্ষ থেকে রইলো অনেক অনেক ভালোবাসা, শুভেচ্ছা।”
নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী লিখেছেন, ‘কখনও চলে গেলে টাইমলাইন জুড়ে টের পাওয়া যায় মানুষটা কতটা বেশি করে ছিল। কখনও কখনও তাই না থাকাটাও হয়ে ওঠে থাকার অনেক বড় স্বাক্ষর। মানুষ হয়তো তাই চলে যায়। সকালে এক ভাইয়ের ফোন পেয়ে ঘুম ভাঙলো। তারপর আধঘণ্টা চুপচাপ বসে আছি। স্মৃতি আর বর্তমানের ঢেউয়ে হতবিহ্বল। দূরদেশের হোটেলে বসে ফেসবুকের টাইমলাইন দেখে দেখে এই কথাগুলোই মনে হলো শুধু। আরও কত কত স্মৃতি আঁকড়ে ধরছে। এবং আঁকড়ে ধরছে ভয়।’
সংগীতশিল্পী তপু লিখেছেন, ‘বাচ্চু ভাই, আপনি চলে গেলেও, আপনার রূপালি গিটার ঠিকই বাজবে লাখো তরুণের হাতে। এই চলে যাওয়া মেনে নিতে খুব কষ্ট হয়। যেখানেই থাকুন, ভালো থাকুন।’
সংগীতশিল্পী তাহসান খান ‘বিধাতা যখন তোমার হাতে/ কোটি হৃদয়ে আন্দোলন/ ফিরিয়ে নিলো সেই বিধাতা/ আজ বুক চিরে শুধু আস্ফালন’ পোস্ট করে লিখেছেন, ‘আজ আর কবিতাটা পোস্ট করছি না। বাচ্চু ভাইয়ের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি।’
সামিনা চৌধুরী শুধু লিখছেন, ‘কী শুনলাম! বাচ্চু ভাই।’ আইয়ুব বাচ্চুর ছবি পোস্ট করে চিত্রনায়ক আরিফিন শুভ লিখেছেন, ‘ভালো থাকুন সম্রাট। শান্তিতে থাকুন।’
ইমরান মাহমুদুল গানে গানে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন, দুদিনের এই সংসারে/কেউ আগে কেউ পরে/চলে যাবে সব ছেড়ে/শুধু ঘরটা রয় পড়ে। এরপর তিনি আরেকটি পোস্টে ঘোষণা দেন এই বলে, শ্রদ্ধেয় আইয়ুব বাচ্চু ভাইয়ের মৃত্যুতে আজ পুরো সঙ্গীতাঙ্গন শোকাহত। তাই আজ আমার ‘মেঘের ডানা’ গানটি মুক্তি পাচ্ছে না।
এ প্রজন্মের অভিনেতা তৌসিফ মাহবুব ২০১২ সালের ৪ জুনের একটি ফেসবুক পোস্ট শেয়ার করে লিখেছেন, ‘আইয়ুব বাচ্চু স্যার, আপনার সঙ্গে কাজ করার ছিল সম্মানের। শান্তিতে থাকুন।’ অভিনেত্রী সাদিকা স্বর্ণাও জানালেন, গিটার জাদুকরের সঙ্গে কাজ করার অভিজ্ঞতা আছে তার।
অ্যানিমেটর ও নির্মাতা ওয়াহিদ ইবনে রেজা দীর্ঘ পোস্টে জানিয়েছেন একটি হোটেলের লবিতে আইয়ুব বাচ্চুকে প্রথম দেখার অভিজ্ঞতা। তিনি লিখেছেন, ‘নিউইয়র্কের ম্যাডিসন স্কয়ার গার্ডেনে অসংখ্য দর্শক-শ্রোতার সামনে আপনার গিটার বাজানো দেখে চোয়াল ঝুলে পড়েছিল বিদেশি শিল্পীদের। থার্ড ওয়ার্ল্ডের একজন লোক এত ভালো গিটার বাজাতে পারে, এটা তারা বিশ্বাসই করতে চাচ্ছিল না! এক সমুদ্র ভালোবাসা আপনাকে প্রিয় আইয়ুব বাচ্চু। আপনি না থাকলে বাংলা ব্যান্ডের গানের প্রতি আমার ভালোবাসাটাই মনে হয় জন্মাতো না!’
আইয়ুব বাচ্চুর একটি কনসার্টের পরিবেশনার ভিডিও শেয়ার করে চিত্রনায়ক সাইমন সাদিক লিখেছেন, ‘এত দ্রুত এত অচেনা হয়ে যাবেন ভাবতে পারিনি। বলেছিলেন অনেক আড্ডা হবে, আর তো হবে না ভাই! আমাদের ছেড়ে চলে গেলেন রকস্টার আইয়ুব বাচ্চু।’
সংগীতশিল্পী কমল লিখেছেন, ‘সত্যিকারের গিটার মানব আর নেই। এ খবর জেনে আমি গভীর শোকাহত। আমি বাকরুদ্ধ। তিনি ছিলেন দেশের সংগীতাঙ্গনের সেরা যোদ্ধা। চিরকাল আপনার শূন্যতা অনুভব করবো।’
অভিনেতা ফজলুর রহমান বাবু লিখেছেন, ‘বাচ্চু ভাই, কেন এত সকালে রূপালি গিটার ফেলে চলে গেলেন?’ ‘রক লিজেন্ড আইয়ুব বাচ্চু’ হ্যাশট্যাগ জুড়ে দিয়ে সংগীত পরিচালক জেকে লিখেছেন, ‘কোটি বাঙালির বুকে আপনি ছিলেন, থাকবেন আজীবন।’
গীতিকার হাসান মতিউর রহমান লিখেছেন, ‘এবি, ভিতর ও বাহিরে, অন্তরে অন্তরে, রবে তুমি।’ আইয়ুব বাচ্চুর ‘মাকে বলিস’ গানটির ইউটিউব লিংক শেয়ার করে নাট্যকার-চিত্রশিল্পী শিবু কুমার শীল লিখেছেন,‘বিদায় মায়েস্ত্রো।’
সংগীতশিল্পী শফিক তুহিন লিখেছেন, ‌‌‘কি করে বোঝাব নিজেকে বাচ্চু ভাই আর নেই। বস, আজ আমি যেখানে আছি, সেটা শুধু আপনারই জন্য…।’
সৈয়দ শামসুল হকের ছেলে দ্বিতীয় সৈয়দ হকের মন্তব্য, আজ ১৮ অক্টোবর বাংলাদেশি রক সংগীতের জন্য গভীর বেদনার দিন। তিনি ছিলেন আমার বন্ধু, বড় ভাই, দীর্ঘদিনের মেন্টর ও শুভকাঙ্ক্ষী।’
আইয়ুব বাচ্চু এবি ফেসবুক পেজে এ বছরের ১১ জুলাই পোস্ট করা হয়, ‘জীবনের ডায়েরিতে অদৃশ্য কালিতে একটি সত্য আছে লিখা, মানুষ বড় একা।’ এটি শেয়ার করে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন অভিনেত্রী পুনম হাসান জুঁই।
মূলত শোক জানিয়েছেন নাটক, সিনেমা ও সংগীতের প্রায় প্রতিজন মানুষ।
এছাড়া স্টার সিনেপ্লেক্স, সিএমভি, সিডি চয়েস, জাজ মাল্টিমিডিয়া, ব্যান্ড শিরোনামহীন, বামবাসহ বিভিন্ন ব্যান্ড ও প্রতিষ্ঠানের ফেসবুক পেজেও শোক জানানো হয়েছে এই কিংবদন্তির অকাল প্রস্থানে।

Be the first to comment

Leave a Reply